তেলেঙ্গানা পুলিসকে শুভেচ্ছা  তেলুগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির একাধিক তারকার

হায়দরাবাদ পশু চিকিৎসককে ধর্ষণ ও জীবন্ত পুড়িয়ে মারার ঘটনায় উত্তাল দেশে শেষ পর্যন্ত শান্তির ছায়া পড়ল। শুক্রবার কাকভোরে হায়দরাবাদ গণধর্ষণ এবং খুনের ঘটনা পুনর্নির্মাণের সময়ে পালানোর চেষ্টা করে অভিযুক্তরা। এরপরই তাদের ধাওয়া করে এনএইচ ৪৪ -এর উপর গুলি চালায় পুলিস। যেখানে তরুণীর দেহ মিলেছিল তার খুব কাছেই হয় এই এনকাউন্টার। তেলেঙ্গানা এনকাউন্টারের পর বিভিন্ন মহল থেকে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য আসতে শুরু করে। কেউ তেলেঙ্গানা পুলিসের নামে জয়ধ্বনি দিতে শুরু করেন আবার কেউ ওই ঘটনার বিরুদ্ধে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেন। তবে বলিউড এবং টলিউড সেলেবদের পাশাপাশি তেলেঙ্গানা  পুলিসকে ধন্যবাদ জানিয়েছে দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অনেক সেলিব্রিটিও। নাগার্জুনা আক্কানেনি লেখেন, “সকালে ঘুম থেকে উঠেই খবরটা দেখলাম । ততক্ষণে বিচার হয়ে গেছে ।”সামান্থা আক্কিনেনি লেখেন, “তেলাঙ্গানাকে আমি ভালোবাসি । ভয় হল একমাত্র সমাধান ।” দক্ষিণী অভিনেতা  জুনিয়র এনটিআর বলেন, যা হয়েছে একেবারে ঠিক। পশু চিকিৎসক তরুণীর আত্মা আজ শান্তি পেল। অল্লু অর্জুন জানান,  উপযুক্ত বিচার হয়েছে। এনকাউন্টারে ৪ অভিযুক্তকে খতম করার পর তেলেঙ্গানা পুলিসকে ধন্যবাদ জানান অল্লু সিরিস। তেলেঙ্গানা পুলিস যেভাবে ধর্ষকদের শাস্তি দিয়েছে, তার জন্য ধন্যবাদ জানান নিধি অগরওয়াল। এভাবেই শাস্তি দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন জয়াম রবি। রকুল প্রিত লেখেন, “ধর্ষণের মতো অপরাধ করে তোমরা কতদূর পর্যন্ত পালাতে পারতে । এনকাউন্টারের জন্য তেলেঙ্গানা পুলিসকে অনেক ধন্যবাদ ।” বান্টি এস ওয়ালিয়া লেখেন, “ধর্ষকদের সঙ্গে এটাই করা উচিত ।” নানি লেখেন, “কোনও এলাকায় ক্ষমতাশালী যদি কেউ থাকে তাহলে সেটা যেন একজন পুলিসকর্মীই হন ।”