ভারতকে ‘হিন্দুরাষ্ট্র’ বলে বিতর্কিত রবি কিষেণ

এনআরসি নিয়ে দেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি চরমে। তার মধ্যেই গোরখপুরের বিজেপি সাংসদ রবি কিষেণ ভারতকে ‘হিন্দুরাষ্ট্র’ বলে বিতর্ক বাড়ালেন । তাঁর কথায়, ভারতবর্ষে ১০০ কোটি হিন্দু রয়েছেন তাই এটা হিন্দুরাষ্ট্র। তাঁর এই মন্তব্যে অস্বস্তি বেড়েছে গেরুয়া শিবিরে। প্রসঙ্গত, বুধবার সকাল সাড়ে ন’টা নাগাদ শুরু হয় কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠক। বৈঠকে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের খসড়া পেশ করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সর্বসম্মতিক্রমে খসড়াটি ছাড়পত্র পায় বলে। সরকারের প্রস্তাবিত বিলটি আসলে ১৯৫৫-র নাগরিকত্ব আইনের সংশোধিত খসড়া। এর মূল বক্তব্য হল, তিনটি প্রতিবেশী দেশ থেকে আগত অমুসলিম শরণার্থীদের ভারতের নাগরিকত্ব দিতে হবে। পাকিস্তান, বাংলাদেশ এবং আফগানিস্তান থেকে আগত ৬টি অমুসলিম জাতি হিন্দু, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ, শিখ, পার্সি এবং জৈন ধর্মাবলম্বীদের নাগরিকত্ব দেবে ভারত। মুসলিম অনুপ্রবেশকারীরা এ দেশের নাগরিকত্ব পাবে না।এই প্রসঙ্গেই গতকাল সংসদের বাইরে সংবাদ সংস্থা এএনআইকে রবি কিষেণ বলেন, ‘ভারতে হিন্দুদের জনসংখ্যা ১০০ কোটি। স্বাভাবিকভাবেই এটা হিন্দুরাষ্ট্র। বিশ্বে অনেক মুসলিম-খ্রিস্টান দেশ রয়েছে। সেটা হলে হিন্দুরাষ্ট্র কেন হতে পারে না?’