মুখ ঢেকে ঘরে ফিরলেন আহত শাহিদ

বর্তমানে দক্ষিণী ছবির ‘জার্সি’র হিন্দি রিমেকের শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত রয়েছেন শাহিদ কাপুর।ছবিটি পরিচালনা করছেন গৌতম তিন্নানুরি। দক্ষিণী ফিল্মটিও তাঁরই পরিচালিত। ছবিটি প্রযোজনা করছেন আল্লু অরবিন্দ, অমন গিল, দিল রাজু। ছবির জন্য যে শাহিদ বেশ পরিশ্রম করেন, তা কারওর অজানা নয়।  তাঁর সাম্প্রতিকতম ছবি ‘কবীর সিং’ই তার প্রমাণ। ‘অর্জুন রেড্ডি’র ছক থেকে বেরিয়ে এসে নতুনভাবে ‘কবীর সিং’-এ নিজেকে উপস্থাপন করেছিলেন শাহিদ। তাই ‘জার্সি’ নিয়েও আগ্রহ তুঙ্গে। কবীর সিংয়ের মতো এই ছবির জন্যও প্রচুর খাটছেন শাহিদ। একটি টেক দেওয়ার আগে একাধিকবার রিহার্সাল করছেন। জার্সি-র শ্যুটিং করতে গিয়ে গুরুতর আহত হন শাহিদ কাপুর। মোহালি স্টেডিয়ামে চলছিল ছবির শ্যুটিং। শটের আগে ক্রিকেটের রিহার্সাল করছিলেন শাহিদ কাপুর। তখনই ঘটে দুর্ঘটনা। দ্রুত গতিতে একটি বল এসে তাঁর নীচের ঠোঁটে লাগে। ঠোঁট ফেটে রক্ত পড়তে থাকে। তৎক্ষণাৎ তাঁকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। শাহিদের ক্ষত গভীর হওয়ায় ঠোঁটের নীচে ১৭টি সেলাই পড়ে। শুটিং টিমের সূত্রে জানা যাচ্ছে, “শাহিদ একেবারে ঠিক খেলছিল আর শটের আগে রিহার্সাল করছিল । হঠাৎ করেই বলটা এসে শাহিদের নীচের ঠোঁটে লাগে ও ঠোঁট কেটে রক্ত বেরোতে থাকে । সঙ্গে সঙ্গে ওঁকে চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয় । জখমকে সারাতে সঙ্গে সঙ্গে সেলাই করেন ডাক্তার । সব মিলিয়ে শাহিদের নীচের ঠোঁটটি খুবই খারাপ অবস্থায় রয়েছে । তাই যতক্ষণ ঠোঁটের ফোলা ভাবটা কমে স্বাভাবিক অবস্থায় আসছে, ততক্ষণ শুটিং করতে পারবে না অভিনেতা । তবে ও চেষ্টা করছে যাতে ৪-৫ দিনের মধ্যে সুস্থ হয়ে শুটিংয়ে ফিরতে পারে ।” জানা গিয়েছে, খবর পেয়েই চণ্ডীগড়ে ছুটে আসেন স্ত্রী মীরা রাজপুত। চণ্ডীগড়ের এক হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন শাহিদ। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ভক্তরা চিন্তিত হয়ে পড়েন। দ্রুত আরোগ্য কামনা করেন ভক্তরা। এরপর একটু সুস্থ হয়ে উঠতেই এদিন নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে ভক্তদের ধন্যবাদ জানিয়ে শাহিদ লেখেন, ”যাঁরা আমার আরোগ্য কামনা করেছেন, তাঁদের সকলকে ধন্যবাদ। হ্যাঁ আমার বেশকিছু সেলাই পড়েছে এবং কিছুটা রক্তক্ষরণও হয়েছে। তবে আমার মনে হয় একটা ভালো চিত্রনাট্যের জন্য এইটুকু করতেই হয়। আমি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছি। সকলেই ভালো কিছুর অপেক্ষায় থাকুন। ছবিটি প্রাণবন্ত করে তুলতে হবে। এভাবেই ভালোবাসা দিতে থাকুন।” হাসপাতালে থেকে অবশেষে বাড়ি ফিরেছেন অভিনেতা। শনিবার মুম্বই বিমানবন্দরে স্ত্রী মীরা রাজপুতের সঙ্গে দেখা গিয়েছে শাহিদকে। সেখানেই নজরে এসেছে স্কার্ফ দিয়ে ঢাকা রয়েছে অভিনেতার মুখের নীচের অংশ, অর্থাত্‍ ঠোঁটের দিকের ভাগ। দেখেই অনুমান করা গিয়েছে যে বেশ ভালোই চোট পেয়েছেন শাহিদ। হুডির টুপি দিয়ে মাথা ঢেকে আর মুখে স্কার্ফ বেঁধেই বিমানবন্দর থেকে বেরোতে দেখা যায় শাহিদকে। ‘জার্সি’-তে শাহিদ বছর ৩৬-এর অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটারের ভূমিকায় অভিনয় করবেন।  ‘জার্সি’র শ্যুটিংয়ের জন্যই শহিদ ক্রিকেট খেলছিলেন।জানা যাচ্ছে ‘জার্সি’ ছবিতে তাঁকে যাতে এক্কেবারে পেশাদার ক্রিকেটারের মতো দেখতে লাগে সেকারণেই জমিয়ে ক্রিকেট অনুশীলনও করেছেন শাহিদ। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেতার ক্রিকেট অনুশীলনের একটি ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এসেছে।এই ছবিতে শাহিদ ছাড়াও দেখা যাবে পঙ্কজ কাপুরকে। শাহিদের মেন্টরের ভূমিকায় অভিনয় করছেন তিনি।প্রসঙ্গত এর আগে তাঁর ছবি জার্সি (যেটা কিনা তেলুগু ছবির রিমেক) প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে শাহিদ বলেছিলেন, ” জার্সির যে চরিত্রটা, সেটির সঙ্গে আমি নিজেকে একাত্ম করতে পারছি। ছবিতে এমন একটা চরিত্র তুলে ধরা হয়েছে যিনি ৩৬ বছর বয়সে ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণার পর বাস্তব জীবনে নানান সমস্যার সম্মুখীন হন, বিভিন্ন টালবাহানার মধ্যে দিয়ে তার জীবন এগোয়। সিনেমাটিতে চরিত্রটা যেভাবে তুলে ধরা হয়েছে, তাতে ওই চরিত্রটির সঙ্গে আমি নিজেকে মেলাতে পেরেছি। জার্সি (তেলুগু) ছবিটি দেখে  আমি ৪ বার কেঁদে ফেলেছি।” তবে শাহিদের কথায়, ”যদিও কবীর সিংয়ের সঙ্গে জার্সির চরিত্রটির কোনও মিল নেই। জার্সির যে চরিত্রটা রয়েছে সেটা ভীষণই অন্তর্মুখী ও শান্ত একটি চরিত্র। কবীর সিংয়ের সঙ্গে এর কোনও মিলই নেই। তবে এই ব্যক্তির যাত্রা ভীষণই অনুপ্রাণিত করে। আমি সেই ছবিই করতে রাজি হই যেটির সঙ্গে আমি নিজেকে একাত্ম করতে পারি। ছবিটি সাফল্য পাবে কিনা সেটা পরের প্রশ্ন।” তিনি এও বলেন, ‘আসলে, কবীর সিংয়ের পর কী করব তা ঠিক করতে একটু সময় নিয়ে নিয়েছি। কিন্তু যখনই জার্সি দেখেছি আমি বুঝে গিয়েছিলাম এটাই আমার পরের ছবি। এই জার্নিটার সঙ্গে নিজেকে জুড়ে নিতে পেরেছি।’ ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যাবে মৃণাল ঠাকুরকে ৷ ২৮ অগস্ট মুক্তি পাবে শাহিদের ছবি ‘জার্সি’।