সংবিধান রক্ষায় খোলা চিঠি লিখলেন শর্মিলা ঠাকুর সহ ৮ বিশিষ্টজন

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি প্রতিবাদে বিভিন্ন সময়ে সরব হয়েছেন সমাজের বিশিষ্টজনেরাও। বাদ যাননি বলিউড তারকারাও। এ বছর ভারতবর্ষে ৭০তম প্রজাতন্ত্র দিবস পালিত হতে চলেছে। তার ঠিক আগে ৮ জন মাননীয় ব্যক্তি সংবিধান রক্ষায় লিখলেন খোলা চিঠি। তাঁরা দেশের নাগরিকদের কাছে আবেদন জানিয়েছেন যে ৭০তম প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে সংবিধানের অর্ন্তদর্শন ও নিরীক্ষণ হোক। তাঁদের প্রত্যেকেরই আবেদন সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হোক। সোমবার বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা জানিয়েছিলেন যে প্রতিটি প্রজন্মের ‘‌সংবিধানের কার্যধারা অব্যাহতভাবে নিরীক্ষণ এবং তাকে রক্ষা করা একান্ত কর্তব্য।’‌ ”70 years of Indian Constitution-A Defining Moment শিরোনামে লেখা এই খোলা চিঠিতে তাঁরা মানুষের কাছে আবেদন করেন, ‘সংবিধানের ৭০ বছর পূর্ণ উপলক্ষ্যে সবার কাছে একটাই অনুরোধ করব আত্মবিশ্লেষণ করুন আরও একবার। প্রতিজ্ঞা করুন সেই সব ভুলত্রুটি সুধরে নেওয়ার যা সংবিধানের মন্ত্রকে ঝাপসা করে দিয়েছে।’ সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি জে চেলামেশ্বর, প্রাক্তন নির্বাচন কমিশনার এস ওয়াই কুরেশি এবং প্রখ্যাত অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুরের পাশাপাশি এই খোলা চিঠিতে সই করেছেন প্রাক্তন সেনা কমান্ডার লেফট্যানেন্ট জেনারেল হরচরণজিত সিং পানাঙ্গ, চিত্র পরিচালক আদুর গোপালাকৃষ্ণন, কর্নাটিক সংগীত শিল্পী টি এম কৃষ্ণন, প্রাক্তন ইউজিসি চেয়ারম্যান আইসিএসএসআর সুখদেও থোরাট এবং প্ল্যানিং কমিশনের প্রাক্তন সদস্য সইদা হামিদ। এই খোলা চিঠিতে তাঁদের প্রশ্ন, ‘সংবিধান কি নেহাতই সাধারণ কালিতে লেখা প্রশাসনিক পুস্তিকা যা যে ভাবে খুশি ব্যবহার করতে পারে সরকার? নাকি সংবিধান আসলে অসংখ্য শহিদদের রক্তে লেখা একটি পবিত্র বই, যাঁরা ধর্ম, জাতি, ভাষা বা অঞ্চলের ভেদাভেদ আদপেই মানতেন না!’‌ দেশজুড়ে যখন এনআরসি, সিএএ নিয়ে বিক্ষিপ্ত বিক্ষোভ-আন্দোলনে যখন জ্বলছে মানুষের মন, ঠিক সেই সময়ই সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রের মানুষদের এই আবেদনময় চিঠি। বিরোধী স্বার্থের শান্তিপূর্ণ পুর্নমিলন, নাগরিকদের মধ্যে স্বাস্থ্যকর আলোচনা এবং ভিন্নমত পোষণের ওপর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন গণতন্ত্রের কাঠামো হওয়া উচিত বলে জোর দিয়েছেন তাঁরা। বিশিষ্ট নাগরিকরা আবেদন করেছেন, ‘‌সত্য ও অহিংসা কে অন্তর্ভুক্ত করা হোক। এই দুঠি মূল্যবোধ জাতির পিতার হৃদয়ের অত্যন্ত প্রিয়, যা জনগণের প্রতি আমাদের ক্রিয়াকলাপ অবহিত করে চলেছে।’‌